চাঁদপুরে আন্তর্জাতিকমানের পর্যটন কেন্দ্র স্থাপনে গবেষক টিমের সাইট পরিদর্শন

চাঁদপুরটিভি ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ৩০ নভেম্বর ২০২১, ৫:১০ অপরাহ্ণ | আপডেট: ২ মাস আগে
চাঁদপুরে আন্তর্জাতিকমানের পর্যটন কেন্দ্র স্থাপনে গবেষক টিমের সাইট পরিদর্শন

চাঁদপুরে মেঘনার ৪টি চর নিয়ে যে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্র স্থাপনের কাজ চলছে, তার সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে গবেষক টিম সাইট পরিদর্শন করেছে। বাংলাদেশ সরকারের নদী গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা কাজী রেজাউল করিমের নেতৃত্বে ৯জন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ২৯ নভেম্বর সোমবার সাইট পরিদর্শনে আসেন। তাঁর সাথে আরো যে ৮ জন ছিলেন তারা হচ্ছেন নদী গবেষণা কেন্দ্রের প্রিন্সিপাল সায়েন্টেফিক অফিসার উমা সাহা, একেএম আশ্রাফুজ্জামান, মতিউর রহমান মন্ডল, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা নয়ন চন্দ্র ঘোষ, মনিরুজ্জামান, খন্দকার রাজিব আহমেদ, ওমর আলী মাইমুন ও সুমাইয়া ফেরদৌস। সাথে ছিলেন প্রকল্পটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী, চাঁদপুরের কৃতী সন্তান সাগর মাহমুদ, ‘বøæ-রিভার আইল্যান্ড রিসোর্ট এন্ড ট্যুরিজম লিমিটেড’-এর পরিচালক ইঞ্জিঃ মুনসুর আলম মুন্না ও মাইনুল হাসান দোলন। এছাড়া চাঁদপুরের মিডিয়ার প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, সহ-সভাপতি এএইচএম আহসান উল্লাহ ও সময় টিভির জেলা প্রতিনিধি ফারুক আহমেদ।

ওইদিন দুপুরে চাঁদপুর শহরের বড় স্টেশন মোলহেড থেকে নদী গবেষণা কেন্দ্রের এই টিম স্পীডবোটযোগে প্রকল্প (প্রস্তাবিত) স্থানে যান। তারা প্রস্তাবিত প্রকল্পের চরগুলো পরিদর্শন করেন। সেখানে প্রকল্প পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মুনসুর আলম মুন্না গবেষক টিমের কাছে এই প্রকল্প সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে দেন।

চাঁদপুর বড় স্টেশন মোলহেড থেকে ৪ কিলোমিটার উত্তর-পূর্ব দিকে অবস্থিত দাসাদী ও বিষ্ণুপুর মৌজার মেঘনার ৪টি চরকে নিয়ে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার প্রকল্প হাতে নেয় ‘বøæ-রিভার আইল্যান্ড রিসোর্ট এন্ড ট্যুরিজম লিমিটেড’। প্রতিষ্ঠানটির প্রস্তাবনা অনুযায়ী এখানে জাপানিজ কয়েকটি বিনিয়োগ সংস্থা বিনিয়োগ করবে। গতকাল নদী গবেষণা কেন্দ্রের গবেষক টিম সাইট পরিদর্শনে এসে প্রকল্পের অবস্থানসহ বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করেন। আগামী ৬-৮ মাসের মধ্যে নদী গবেষণা কেন্দ্রের কাজ শেষ হবে বলে আশ^াস দিয়েছেন গবেষক টিমের প্রধান কাজী রেজাউল করিম।

প্রকল্পটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী সাগর মাহমুদ জানান, নদী গবেষণা কেন্দ্রের কাজ শেষ হওয়ার পর পরই এই প্রকল্পের কনস্ট্রাকশন কাজ শুরু করা হবে আশা করছি।

এদিকে এ টিমটি ওইদিন বিকেলে চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েলের সাথে সাক্ষাৎ করেন এবং তাদের কাজের অগ্রগতির বিষয়ে অবহিত করেন। প্রকল্প পরিচালক মাইনুল হাসান দোলন জানান, চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির পরামর্শ, আন্তরিকতা এবং সার্বিক সহযোগিতায় প্রকল্প বাস্তবায়ন কাজ এগিয়ে চলছে। এক্ষেত্রে মুখ্য ভ‚মিকা রাখছেন চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল। শিক্ষামন্ত্রীর নির্দেশনায় জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশও প্রকল্পটিকে গুরুত্বের সাথে আমলে নিয়েছেন।

আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্র গড়ার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ‘বøæ-রিভার আইল্যান্ড রিসোর্ট এন্ড ট্যুরিজম লিমিটেড’। তারা গত বছরের শেষ দিকে অর্থাৎ ২০২০ সালের ২৭ ডিসেম্বর মেঘনার কয়েকটি চরে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্র নির্মাণের লক্ষ্য নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রাথমিক কাজ শুরু করে। এই সংস্থার সাথে জাপানিজ কয়েকটি বিনিয়োগ সংস্থাও সংযুক্ত রয়েছে। জানা যায়, বাংলাদেশের বেসরকারি এই পর্যটন সংস্থা আর জাপানিজ কয়েকটি বিনিয়োগ সংস্থা যৌথভাবে দেশে এবং বিদেশে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্র গড়ার কাজে যুক্ত রয়েছে। এর সাথে চাঁদপুর জেলারও কয়েকজন রয়েছেন।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...